করোনায় মানুষ আত্মীয়দের মৃতদেহ ফেলে চলে যাচ্ছে, ছাত্রলীগের কর্মীরা দাফন করছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনার এ সময়ে মানুষ এতো ভীত হয়ে পড়বে ভাবতে পারিনি। মৃতদেহ ফেলে চলে যাচ্ছে। পুলিশ নিয়ে তাদের দাফন করছে। ছাত্রলীগের কর্মীরা দাফন করছে। কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছে ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগ কর্মীরা। আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই।

বুধবার (১০ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে এক শোক প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে প্রসঙ্গক্রমে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রম প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষের মধ্যে কেমন যেন একটা আতঙ্ক বিরাজমান। সারা বিশ্বেই এই পরিস্থিতি চলছে। যে যতই শক্তিশালী হোক, কোনো কিছুই কাজে আসছে না। মানুষের মধ্যে একটা অস্বস্তি বিরাজ করছে। (আমাদের এখানে) করোনা ভাইরাসের সঙ্গে আবার ঘূর্ণিঝড় আম্পান।

তিনি বলেন, আমরা এ পরিস্থিতিতেও আম্পানে ২৪ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে সরানোর ব্যবস্থা করেছি। গৃহপালিত ৬ লাখ গবাদি পশুও সরানো হয়েছে। প্রত্যেকের খাদ্যের ব্যবস্থা করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের সুরক্ষাবিধি মেনেই কিন্তু এসব করা হয়েছে।

Previous post লকডাউনে কর্মহীনদের খুঁজে খুঁজে সাহায্য দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
Next post আমেরিকায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ছাড়াল