তৃতীয় দিনেও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন চলছে

নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃতীয় দিনেও আন্দোলন চলছে। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ক্যাম্পাসের সামনে জড়ো হয়ে অবস্থান কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আজকের মধ্যে দাবি মেনে নেয়া না হলে বুধবার থেকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে অবস্থান নেবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন।

আন্দোলনকারীরা জানান, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে প্রায় সবাই আর্থিক সংকটে রয়েছেন। এ কারণে শিক্ষার্থীদের দাবির প্রেক্ষিতে গত সেমিস্টারে ২০ শতাংশ টিউশন ফি মওকুফ করে নর্থ সাউথ কর্তৃপক্ষ। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি আরও তীব্রতর হওয়ার আশঙ্কা শুরু হলে কোনো নোটিশ ছাড়াই এ সুবিধা বাতিল করা হয়।

বিষয়টি নিয়ে নানা মাধ্যমে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও কোনো সাড়া দেয়নি কর্তৃপক্ষ। তাই তারা বাধ্য হয়ে আন্দোলনে নেমেছেন। দাবি আদায়ে তারা গত দুইদিন ধরে ভিসিসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অবরুদ্ধ করে রাখেন। রাতে আন্দোলন স্থগিত করে বাড়ি ফিরে যান।

এদিকে মঙ্গলবার সকাল থেকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা নর্থ সাউথ ক্যাম্পাসে সমবেত হতে থাকেন। দুপুর ১টায় শতাধিক শিক্ষার্থী প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে ২০ শতাংশ টিউশন ফি মওকুফ ও কোটাভিত্তিক বৃত্তি প্রদানের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন। তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নম্বর গেটের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন।

শিক্ষার্থীরা বলেন, আমাদের যৌক্তিক দাবিতে গত দুইদিন ধরে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছি। আজ তৃতীয় দিনের মতো আন্দোলনে দাঁড়িয়েছি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া হবে। আজকের মধ্যে দাবি মেনে না নেয়া হলে বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন পালন করা হবে।

এছাড়াও ঢাকার বাইরে অবস্থান করা নর্থ সাউথের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা দেশের সকল জেলার প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন পালন করবেন বলে জানান।