নীলফামারীতে বিপদসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার উপরে তিস্তার পানি

ভারী বৃষ্টি আর উজানের ঢলে ফের গর্জে উঠেছে তিস্তা। আজ সকালে নীলফামারীর ডালিয়া পয়েন্ট দিয়ে তিস্তার পানি বিপদসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

শনিবার (১১ জুলাই) তিস্তা ব্যারাজের উপ-সহকারী (পানি পরিমাপক) প্রকৌশলী আমিনুর রশিদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, ভারী বৃষ্টিপাত ও উজানের পাহাড়ি ঢলে শুক্রবার রাত ৯টা থেকে ডালিয়া পয়েন্টে পানি বিপদসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বানের পানির এমন উঠা-নামায় তিস্তা পাড়ের চরাঞ্চলের মানুষ আতঙ্কে রয়েছে।

উপজেলার টেপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ময়নুল হক জানান, তিস্তার পানি উঠা-নামায় কিসামত ছাতনাই ও ঝুনাগাছ চাপানি ইউনিয়নের ছাতুনামা, ভেণ্ডাবাড়ী ও ফরেস্টের চড়ের আশপাশ এলাকায় ব্যাপক ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে ক্ষতির মুখে পড়েছে এলাকার ১০ হাজার পরিবার। তিস্তা অববাহিকায় চর বেষ্টিত নিম্নাঞ্চলগুলোতে বন্যা দেখা দিয়েছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ডালিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম জানান, ভারী বৃষ্টি আর উজানে ঢলের কারণে গতকাল রাত ৯টা থেকে শুরু হয়ে শনিবার সকালেও ডালিয়া পয়েন্টে পানি ৩৫ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। যা কিনা শুক্রবার সকালেও এই পয়েন্টে বিপদসীমার ১২ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়েছে। তবে দুপুরের পর থেকে পানি বেড়ে বিকেলে ১৫ সেন্টিমিটার ও সন্ধ্যা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত বিপৎসীমার ২৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। তবে বন্যার পানি সামাল দিতে তিস্তা ব্যারাজের ৪৪টি জলকপাট খুলে রাখা হয়েছে।

About |

Check Also

রায়হানের বাড়িতে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দল

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশি নির্যাতনে’নিহত রায়হান আহমদের আখালিয়ার নেহারীপাড়াস্থ বাসায় তার পরিবারের …