Breaking News

ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রস্তুতি : করাচি বন্দরকে সমরঘাঁটিতে পরিণত করেছে চীন

ভারতশাসিত লাদাখে ভারত-চীন উত্তেজনার মধ্যে সামনে আসছে নতুন চাঞ্চল্যকর তথ্য। করাচি বন্দরে রাখা হয়েছে চীনের ০৯৩-শ্যাং নিউক্লিয়ার সাবমেরিন। লাহোরে জে-১১ যুদ্ধবিমান মোতায়েন করা হয়েছে। সামরিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পাকিস্তানকে সরাসরি চীনা সমরঘাঁটিতে পরিণত করে ফেলেছে চীন। আর তা করে ভারতের বিরুদ্ধে একেবারে যুদ্ধের প্রস্তুতি চীনের সেনাবাহিনী।

লাদাখের সীমান্ত সঙ্কট নিয়ে ভারতের সঙ্গে আলোচনা, বৈঠক এবং শান্তির বার্তার আড়ালে চীন চূড়ান্ত সংঘাতের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেই মনে করছেন সামরিক বিশেষজ্ঞরা। এই বিষয়ে এরই মধ্যে ভারতীয় সেনাকেও সতর্ক করা হয়েছে। জানা যাচ্ছে,পাকিস্তানের তিনটি বিমানবন্দরে চীনের বিমানাবাহিনীর একঝাঁক ফাইটার জেট রাখা হয়েছে। শুধু তাই নয়, শতাধিক সেনাও পাকিস্তানে ঘাঁটি তৈরি করেছে।

যদিও তথ্য বলছে ২০১৭ সাল থেকে করাচি বন্দরে একটি চীনের সাবমেরিন রাখা হয়েছে। সম্প্রতি লাদাখ সীমান্তে সংঘাতের খবর আসতে চীনের নিউক্লিয়ার সাবমেরিনের তৎপরতা ধরা পড়েছে। গোয়েন্দা সূত্রে পাকিস্তানের মাটিতে চীনের এহেন সেনা তৎপরতা সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে ভারত। বিভিন্ন এয়ারবেসে ভারতীয় বিমান বাহিনীর তৎপরতা বাড়িয়েছে। সেনাবাহিনীতেও একেবারে হাই-অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। পাকিস্তান সীমান্তে ক্রমশ সেনা বাড়ানো হচ্ছে বলেও ভারতীয় সেনা সূত্রে জানা গেছে। ভারত-পাকিস্তান সেক্টরে সেনাকে সর্বোচ্চ অ্যালার্টে রাখা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। সীমান্তে যুদ্ধবিমানগুলিকে ওড়ানো হচ্ছে।

অন্যদিকে, লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোলের কাছে পরিস্থিতি এখনও উত্তেজনাপূর্ণ। চীনের সেনাবাহিনী সরে যাওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। বরং ভারতের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় চীনের সেনা এমন ঘাঁটি গেড়ে বসেছে যে, ভারতীয় সেনার পেট্রলিং পয়েন্টের রাস্তাই কার্যত বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

About |

Check Also

পূর্ব ভূমধ্যসাগর উত্তেজনা শুরুর পর এই প্রথম তুরস্ক ও গ্রীসের বৈঠক

ইনসাফ | সোহেল আহম্মেদ পূর্ব ভূমধ্যসাগরের শক্তি অধিকার এবং সমুদ্রসীমা নির্ধারণের বিষয়ে উত্তর আটলান্টিক চুক্তি …