র‌্যাব-পুলিশ-সেনাবাহিনীর ২২ ঘন্টার অভিযানের পর জানা গেল বস্তুটি ‘টাইলস কাটার যন্ত্র’

সিলেটে বোমা আতংকের শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতির অবসান ঘটছে।

সেনাবাহিনীর বোম ডিসপোজাল টিম রূদ্ধধার অভিযানের ফলাফলে বেরিয়ে এলো বোমা সদৃশ্য বস্তুটি প্রকৃত পক্ষে একটি গ্রাইন্ডিং মেশিন (টাইলস কাটার যন্ত্র)।

বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ৪টায় এক প্রেস বিফিং এ এ তথ্য জানান বোমা ও বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ লে. কর্ণেল রাহাত ও লে. কর্ণেল খালেদ।

এছাড়া তারা জানান, হয়তো ভুলবশত, নয়তো যেহেতু এটা পুলিশ সদস্যের গাড়ি তাই আতঙ্ক ছড়াতেই বোমা সদৃশ্য বস্তু রেখে দিয়েছে দৃর্বৃত্তরা। তবে এটাতে ছিল না কোন ধরণের বিষ্ফোরক দ্রব্য।

এর আগে বেলা ২টায় ঘটনাস্থলে এসে পৌছে বোমা নিস্ক্রিয়করণের একটি স্পেশাল টিম। সিলেট ক্যান্টনম্যান্টের ১৭ পদাতিক ডিভিশন সেনাবাহিনীর ওই টিম এসে বোমা সদৃশ্য বস্তু উদ্ধার অভিযান নামেন।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সিলেট নগরীর চৌহাট্টায় ট্রাফিক সার্জেন্ট চয়ন নাইডুর মোটরসাইকেলে বোমা সদৃশ্য একটি বস্তুর উপস্থিতি মিলে। এর পরপরই চৌহাট্টা পয়েন্ট সহ আশপাশ এলাকা অবস্থান নেয় পুলিশ সহ বিভিন্ন নিরাপত্তা সংস্থার সদস্যরা। এরপর পুলিশের বোমা নিস্ক্রিয়করণ ইউনিট খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছে। রাত ৯টায় র‌্যাব-৯ ও সিআরটির টিম যান ঘটনাস্থলে।

About |

Check Also

রায়হানের বাড়িতে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দল

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশি নির্যাতনে’নিহত রায়হান আহমদের আখালিয়ার নেহারীপাড়াস্থ বাসায় তার পরিবারের …