ভারতকে জরুরি ভিত্তিতে এক্সক্যালিবার আর্টিলারি দিচ্ছে আমেরিকা

চীনের সঙ্গে যুদ্ধ পরিস্থিতির বিষয়ে করণীয় নিয়ে আমেরিকার প্রতিরক্ষা সচিবের সঙ্গে কথা বলবেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সূত্রে খবরে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব মার্ক এসপারের সঙ্গে টেলিফোনে কথা হবে রাজনাথের। পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনা দখল নিয়ে তাদের মধ্যে আলোচনা হতে পারে। পাশাপাশি, কথা হতে পারে আপৎকালীন ভিত্তিতে কিছু সমরাস্ত্র ও রণ-সরঞ্জাম হস্তান্তর নিয়েও।

সম্প্রতি, ভারতীয় সেনাকে লাদাখে চীনা গতিবিধি সংক্রান্ত বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সরবরাহ করেছে আমেরিকা। ওই তথ্যের অংশ হিসেবে ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয় মার্কিন সামরিক উপগ্রহ চিত্র। সূত্রের খবর, সেগুলো থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতে পেয়েছে ভারতীয় সেনা। সেইমতো নিজদের কৌশল অবলম্বন করছে। চীনের বিরুদ্ধে সংঘাতের এই পরিস্থিতিতে ভারতকে সাহায্য করার সর্বান্তক আশ্বাস দিয়েছে ওয়াশিংটন। মার্কিন প্রশাসনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, ভারতের যা যা প্রয়োজন, তা যুদ্ধকালীন ভিত্তিতে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। তবে চীনা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারত যদি মনে করে আমেরিকা তার মিত্র শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হবে তাহলে তারা বড় ভুল করবে।


এদিকে হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথের সঙ্গে এদিন এসপারের বৈঠকে সেই সংক্রান্ত আলোচনাও হবার কথা। ভারতীয় গণমাধ্যমের দাবি, ইমার্জেন্সি রুটে ভারতকে ‘এক্সক্যালিবার’ আর্টিলারি দিতে তৈরি আমেরিকা। এই বিশেষ গোলার পাল্লা ৪০ কিলোমিটার। এই গোলা ভারতীয় সেনার ব্যবহৃত মার্কিন নির্মিত এম৭৭৭ আল্ট্রা লাইট হাউইৎজার সহ বিভিন্ন ধরনের কামানের সঙ্গে ব্যবহার করা যাবে।