‘জুয়া খেলায় বাধা দেয়ায়’ বাড়িতে হামলা করলো স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা

কুমিল্লা জেলার লাকসামে জুয়া খেলায় বাধা দেয়ায় বাড়ি ও দোকানে হামলার অভিযোগ উঠেছে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ও তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে।

উপজেলার মিজিয়াপাড়া কাজী বাড়িতে পুরুষ সদস্যদের না পেয়ে নারীদের মারধর করা হয়েছে ও বাড়ি-দোকানের মালামাল ও নগদ টাকা লুট করে নেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

পরে হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ বাড়ি-ঘরের ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে মানুষকে ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়।

হামলার শিকার কাজী মুহাম্মাদ দুলাল জানান, তাদের বাড়ির পাশের নারায়ণপুরে কিছু লোক জুয়া খেলে। তার ছেলে কাজী মুহাম্মাদ শোয়েব এতে বাধা দেয়। এর জেরে স্থানীয় পলকট গ্রামের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শাহীন আলমের নেতৃত্বে দুর্বৃত্তরা রবিবার রাতে তার ও তার ভাইয়ের ঘরে হামলা চালায়। তার দোকান ভাংচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয়। স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। বাড়ির পুরুষরা সরে গেলে তারা নারীদের উপর হামলা করে।

পরে সরকারের হেল্প লাইন ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে হামলাকারী কয়েকজনের হাত থেকে রাম দেশীয় অস্ত্র দা ও ছেনি কেড়ে নেয়।

তিনি বলেন, হামলার বিষয়ে স্থানীয় গোবিন্দপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন শামীমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি সমাধান করার আশ্বাস দিয়েছেন।

অভিযুক্ত স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শাহীন আলম বলেন, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাহেব আমাদের এলাকাকে শান্তিপূর্ণ রাখার চেষ্টা করছেন। মিজিয়াপাড়ার ঘটনা উপজেলার নেতারাও জানেন।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সঠিক নয় দাবি করে তিনি বলেন, এগুলো বিরোধী পক্ষের অপপ্রচার।

লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।