Breaking News

স্বাধীনতার ৫০ বছর পর বাংলাদেশে কোনো স্বাধীনতাবিরোধী নেই : মন্তব্য ভিপি নুরের

স্বাধীনতার ৫০ বছর পর বাংলাদেশে কোনো স্বাধীনতাবিরোধী নেই বলে মন্তব্য করেছেন ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন দলের ছাত্র সংগঠন বলেছে, স্বাধীনতাবিরোধী যারা তারা ছাড়া অন্যকেউ যদি ধর্ষণের শিকার হয় তবে তাদের বিচারের দাবিতে ছাত্রলীগ মাঠে থাকবে। আমার প্রশ্ন আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশে কোনো স্বাধীনতাবিরোধী আছে?

এসময় উপস্থিত সকলে উচ্চস্বরে বলে,‘নাই’।

তখন নুর বলেন, তাহলে স্বাধীনতাবিরোধী ট্যাগ দিয়ে যারা ধর্ষণকে বৈধতা দিতে চায় তাদের বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। না হলে আমাদের মা-বোনেরা এদেশে স্বাভাবিক জীবনের নিশ্চয়তা পাবে না।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এমসি কলেজে গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ আয়োজিত পদযাত্রা শুরুর পূর্ব মুহূর্তে তিনি এ কথা বলেন।

ক্রসফায়ারকে সরকার ক্ষমতায় থাকার একটি পন্থা হিসেবে বেঁছে নিয়েছে মন্তব্য করে নুর বলেন, ক্ষমতাসীন দলের একজন নেতা বলেছেন যারা ধর্ষণের সাথে জড়িতে তাদের আমরা ক্রসফায়ার দিতে চাই। আমি বলবো আপনাদের মতলব ভালো না। ক্রসফায়ারের নাম করে আপনারা এ পর্যন্ত তিন হাজার মানুষকে হত্যা করেছেন। এদের মধ্যে অনেকেই একদম নিরাপরাধ নিরীহ মানুষ। মূলত এই ক্রসফায়ারকে ক্ষমতায় থাকার একটি পন্থা হিসেবে বেঁছে নিয়েছে তারা।

ডাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, একটার পর একটা ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে, সর্বশেষ সিলেটের এমসি কলেজের ঘটনা ঘটলো। কিন্তু ঘটনাগুলোর কোনো বিচার হচ্ছে না। আমরা খুব লজ্জিত হই যখন আমাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন- ধর্ষণের ঘটনা কোন দেশে না ঘটে। এসব কথা বলে বাংলাদেশে ধর্ষণের বৈধতা দিতে চায়।

তিনি বলেন, টানা ১৪ বছর এই সরকার ক্ষমতায় আছে। আর জনগণ পাচ্ছে খুন, গুম, হত্যা, ধর্ষণ ও নির্যাতন। জনগণ সুফল পায়নি সুফল পেয়েছে ক্ষমতাসীন দলের লুটেরারা।

এরপর ভিপি নুরের নেতৃত্বে প্রতিবাদী পদযাত্রা রাজধানীর মৎস্যভবন, শাহবাগ, টিএসসি হয়ে শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়। এসময় পদযাত্রায় থাকা সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতারা বিভিন্ন ধরনের সরকারবিরোধী স্লোগান দেয়।

About |

Check Also

সারাবিশ্বে দৈনিক ১ হাজার মুসলমান সন্ত্রাস ও সহিংসতার শিকার হচ্ছে: এরদোগান

ইনসাফ | সোহেল আহম্মেদ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী মুসলিম নেতা রজব তাইয়েব এরদোগান …