Breaking News

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট প্রার্থী বাইডেনের ‘ইনশাআল্লাহ’ বলা নিয়ে তোলপাড়

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে টিভি বিতর্কে ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনের আরবি শব্দ ‘ইনশাআল্লাহ’ উচ্চারণ নিয়ে সরগরম সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

আলজাজিরা জানায়, নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে মঙ্গলবার ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জো বাইডেনের মধ্যে প্রথম বিতর্কটি অনুষ্ঠিত হয়।

বিতর্কে জো বাইডেন উচ্চারণ করেন-‘ইনশাআল্লাহ’। এরপর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

বিপুলসংখ্যক ইউজার বিতর্কের বাইডেনের ওই অংশটুকুর ভিডিও শেয়ার করেছেন।

সম্প্রতি ট্রাম্পের ১০ বছরের আয়কর না দেয়ার বিষয়টি ফাঁস হয়। মঙ্গলবারের বিতর্কে বিষয়টি আলোচনায় আসে।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ক্রিস ওয়ালেস বারবার ট্রাম্পের কাছে জানতে চান, তিনি কবে আয়কর প্রদানের তথ্য প্রকাশ করতে পারেন। আর উত্তরে ট্রাম্প বারবার বলতে থাকেন, ‘আপনারা সময় মতোই তা দেখতে পাবেন।’

আর এসময় জো বাইডেন ব্যঙ্গ করে বলেন, ‘কবে? ইনশাআল্লাহ?’ আরবি শব্দ ‘ইনশাল্লাহ’ এর অর্থ হচ্ছে-‘যদি আল্লাহ চান।’

ট্রাম্পকে উত্তর দিতে বাইডেন হাস্যরস করলেও তার মুখে ‘ইনশাআল্লাহ’ উচ্চারণকে অনেকেই ঐতিহাসিক বলে আখ্যায়িত করেছেন।

বাইডেনের ইনশাল্লাহ বলা তার প্রচারণা শিবিরের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করেছেন ন্যাশনাল পাবলিক রেডিও (এনপিআর) এর জাতীয় রাজনীতি বিষয়ক প্রতিনিধি আসমা খালিদ।

এক টুইটবার্তায় তিনি বলেন, ‘আপনারা যারা বিস্মিত হয়েছেন তাদের জন্য-জো বাইডেন কি ব্যঙ্গাত্মক করতে গিয়ে সত্যিই একটি ইনশাআল্লাহ ফেলেছেন? হ্যাঁ, তিনি করেছেন। আমি তার প্রচারণা শিবির থেকে নিশ্চিত হয়েছি।’

মার্কিন গবেষক ও প্রভাবশালী চিন্তক সাদি হামিদ বলেন, ‘বেড়ে উঠার সময় আমার বাবা-মা যদি আমাকে বলতেন যে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের টিভি বিতর্কে একজন প্রধান প্রার্থী ইনশাআল্লাহ বলেছেন, তাহলে তাদের আমি পাগল বলতাম। কিন্তু ২০২০ সালে আসলে সব কিছু সম্ভব।’

About |

Check Also

ফাউসির উপদেশ শুনলে আমেরিকায় করোনায় মারা যেত ৫ লাখ: ট্রাম্প

হোয়াইট হাউজে করোনা ভাইরাস বিষয়ক টাস্কফোর্সের সদস্য ও আমেরিকার সংক্রামক ব্যাধি বিষয়ক শীর্ষ বিশেষজ্ঞ ড. …