রায়হান হত্যার প্রতিবাদে উত্তপ্ত সিলেট, পুলিশকে বিক্ষুব্ধ জনতার ধাওয়া

পুলিশ হেফাজতে যুবক রায়হান আহমদের মৃত্যুর প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সিলেট।

নগরীর আখালিয়া এলাকায় পুলিশকে ধাওয়া করেছে বিক্ষুব্ধ জনতা। বৃহস্পতিবার বিকেলে রায়হান হত্যার বিচার দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

এদিন বিকেলে আখালিয়া এলাকায় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন স্থানীয়রা। এতে রাস্তার দুপাশে শতশত গাড়ি আটকা পড়ে। এসময় সিলেট কোতোয়ালি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের রাস্তা থেকে সরে যেতে অনুরোধ করে।

পুলিশকে দেখেই বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন বিক্ষোভকারীরা। পুলিশের বিরুদ্ধে শ্লোগানও দিতে শুরু করেন বিক্ষোভকারীরা। তারা ধাওয়া করতে থাকেন পুলিশ সদস্যদের।

সিলেট নগরীর আখালিয়ার রোববার (১১ অক্টোবর) ভোরে রায়হান উদ্দিন (৩৩) নামে এক যুবক নিহত হন। পুলিশি নির্যাতনে যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পরিবার। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, ছিনতাইয়ের দায়ে নগরের কাষ্টঘর এলাকায় গণপিটুনিতে নিহত হন রায়হান।

এদিকে ওই এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ গণপিটুনির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায় নি। এলাকাবাসীও বলছেন, কাষ্টঘরে গণপিটুনির কোনো ঘটনা ঘটেনি।

রায়হানের পরিবার বলছে, বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ি থেকে রোববার ভোরে রায়হানের পরিবারের কাছে ফোন করে টাকা দাবি করা হয়।

রোববার রাতে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন নিহতের স্ত্রী।

সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি মডেল থানায় স্ত্রী তাহমিনা আক্তার তান্নি বাদি হয়ে রাত ২টা ৩০ মিনিটে ৩০২/৩৪ ধারায় এই মামলাটি দায়ের করেন।

রায়হান হত্যার তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে পিবিআই। ইতিমধ্যে রায়হানের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।

এছাড়া শরীরে অতিরিক্ত আঘাতের কারণেই রায়হান আহমদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিলেট এমএজি ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগ।