সারাবিশ্বে দৈনিক ১ হাজার মুসলমান সন্ত্রাস ও সহিংসতার শিকার হচ্ছে: এরদোগান

ইনসাফ | সোহেল আহম্মেদ


তুরস্কের প্রেসিডেন্ট ও বিশ্বের অন্যতম প্রভাবশালী মুসলিম নেতা রজব তাইয়েব এরদোগান বলেছেন, সারাবিশ্বে দৈনিক কমপক্ষে ১ হাজার মুসলমান সন্ত্রাস ও সহিংসতার শিকার হচ্ছে।

মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) তুরস্কের ধর্ম বিষয়ক অধিদপ্তরের পৃষ্ঠপোষকতায় আয়োজিত ইসলামিক সহযোগিতা সংস্থার ওআইসির একটি বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এরদোগান বলেন, বিশ্বের সকল মুসলমান ও তাদের সম্প্রদায়কে সন্ত্রাসবাদ ও বর্ণবাদের মতো বিপদ থেকে রক্ষা করতে হবে যা ইসলামী সম্প্রদায়কে অভ্যন্তর থেকে পতনের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

বিশ্বব্যাপী গড়ে দৈনিক ১ হাজার মুসলমান সন্ত্রাস বা সহিংসতার শিকার হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, মুসলমান হিসাবে আমরা অজ্ঞতা এবং পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে সন্ত্রাস, ক্ষুধা, এবং বৈষম্যের মতো অনেক জটিল সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছি।

ইসলামের ভুল বোঝাবুঝি এবং ভুল শিক্ষার কারণেও মুসলমানরা বিভিন্ন সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে উল্লেখ করে এরদোগান বলেন, আমাদের ধর্মের সার্বজনীনতা এবং দৈনন্দিন জীবনে বাস্তবতার মধ্যে একটি দৃঢ় এবং অবিচল বন্ধন গঠন করা প্রয়োজন।

তিনি ওআইসির সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বলেন, আমরা কারো সাতে এমন কোন রাজনৈতিক চুক্তি করব না যা মুসলিম উম্মাহর জন্য ক্ষতিকর।

পশ্চিমা কিছু দেশের ইসলামফোবিক নীতিমালার নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, এ জাতীয় পদক্ষেপগুলি তাদের নিজস্ব ব্যর্থতা আড়াল করার একটি কার্যকর উপকরণ হয়ে গেছে। বিশেষ করে ফরাসী রাষ্ট্রপতি ম্যাক্রোঁ ও অন্যান্যরা ইসলামকে তাদের আক্রমণের লক্ষ্যবস্তু বানিয়েছে।

এরদোগান বলেন, পশ্চিমাদের এমন একটি ইসলামবিরোধী ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার আকাঙ্ক্ষা রয়েছে যেখানে কেবল ঘরে ঘরে ধর্মচর্চা হয় এবং রাস্তায়, কর্মস্থলে, শহরতলিতে বা সামাজিক জীবনে ধর্মীয় রীতি নীতির কোন প্রভাব না থাকে।

তিনি বলেন, ইসলাম বিরোধীদের নিয়মিত আক্রমণাত্মক হামলা বা সমালোচনা কখনই আমাদের ধর্মীয় চেতনাকে বিলীন করে দিতে পারবেনা।

সূত্র: ইয়েনি সাফাক