চুয়াডাঙ্গায় চোরাই মোবাইল ও নিষিদ্ধ ওষুধসহ আটক ৫

সাম্প্রতিক সময়ে নিষিদ্ধ নেশাজাতীয় ট্যাবলেট ও চোরাই মোবাইলসহ পাঁচজনকে আটক করেছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানা পুলিশ।

শনিবার (১৮ জুলাই) রাতে শহরের রেলবাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৭১ পিস টাপেন্টা ও সিন্টা ট্যাবলেট এবং ৪২টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন চুয়াডাঙ্গার রেলবাজারের সুরুজ ফার্মেসির মালিক বড় মসজিদপাড়ার মৃত আলতাব হোসেনের ছেলে মনির হোসেন (৫০), সাতগাড়ির রবিউল হকের ছেলে আকাশ (২৫), জাফরপুরের ছানোয়ার হোসেনের ছেলে স্বপন (১৮), মোমিনপুর গ্রামের আজিবর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসান (২৫) ও একই এলাকার লালুর ছেলে মনিরুল ইসলাম (২০)।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু জিহাদ খান জানান, সাম্প্রতিক সময়ে নেশাজাতীয় টাপেন্টাডল বা টাপেন্টা ও সিন্টা নামের দুটি ট্যাবলেট প্রেসক্রিপশন ছাড়াই বিক্রির অভিযোগ ওঠে। এর ফলে গত ৯ জুন সরকারি প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে মাদকদ্রব্য আইনে ওষুধ দুটি নিষিদ্ধ করে মাদকের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

ওসি আরও জানান, শহরের রেলবাজার এলাকায় প্রেসক্রিপশন ছাড়া এ দুটি ওষুধ বিক্রির খবর পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়।

About |

Check Also

রায়হানের বাড়িতে পুলিশ সদর দপ্তরের তদন্ত দল

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের (এসএমপি) বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ‘পুলিশি নির্যাতনে’নিহত রায়হান আহমদের আখালিয়ার নেহারীপাড়াস্থ বাসায় তার পরিবারের …