সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত

সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিন ও বেসরকারি পার্কভিউ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান ডা. দীলিপ কুমার ভৌমিক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত।

তিনি এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ছিলেন।

তার স্ত্রীও একই হাসপাতালের শিশু রোগ বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।

মঙ্গলবার (৫ মে) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. আনিসুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেনম, গতকাল সোমবার সিলেটের ৭৮ জন চিকিৎসকের নমুনা সংগ্রহ করে ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১৬ জন ইন্টার্ন চিকিৎসকসহ ওই অধ্যাপকের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

তিনি বলেন, আক্রান্ত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সাবেক বিভাগীয় প্রধান ছিলেন। বর্তমানে তিনি একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তবে তিনি সুস্থ আছেন। আজ আবার তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করা হবে।

ডা. আনিসুর রহমান আরও বলেন, সিলেটে সংগ্রহ করা নমুনা বেশি হওয়ায় ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাব থেকে গত ২৮ এপ্রিল ৬৬৭টি নমুনা ঢাকায় পাঠানো হয়েছিল। এরমধ্যে ৭৮টির রিপোর্ট গত ১মে পজিটিভ আসে। তবে একাধিক নম্বর থাকায় ওই ৭৮ জনের পরিচয় নিশ্চিত হতে একটু সময় লেগে যায়। অবশেষে আমরা মঙ্গলবার তাদের পরিচয় নিশ্চিত করেছি। আক্রান্তদের মধ্যে সিলেট জেলায় ৩৯ জন, সুনামগঞ্জে ২২ জন, হবিগঞ্জে ১২ জন ও মৌলভীবাজার জেলায় ৬ জন রয়েছেন।

এদিকে, সিলেট বিভাগে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন মোট ২ হাজার ৫১৪ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ২৭৮ জন, সুনামগঞ্জে ১৩৭১ জন, হবিগঞ্জে ৫২২ জন ও মৌলভীবাজার জেলায় ৩৪৩ জন।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগে নতুন করে কোয়ারেন্টাইনে গেছেন ৮০ জন। আর কোয়ারেন্টাইন থেকে ছাড়পত্র পেয়েছেন ২৭৭ জন।

Previous post সিলেটে চিকিৎসক দম্পতির সংস্পর্শে আসা ৪ জনের করোনা শনাক্ত
Next post সংসদ সদস্যকে নিয়ে সমালোচনা করার অভিযোগে সাংবাদিক গ্রেপ্তার