ওসমানীতে প্রতিদিন ৪৫০টি নমুনা আসলেও পরীক্ষা করা হয় ১৫০টি

সিলেট বিভাগের বিভিন্ন উপজেলা থেকে প্রতিদিন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে প্রায় ৪৫০টি করে নমুনা আসে। তবে এরমধ্যে প্রতিদিন গড়ে ১৫০টির মতো নমুনা পরীক্ষা হয়।

গত ৭ এপ্রিল করোনাভাইরাস পরীক্ষা শুরু হয় এই ল্যাবে।

এখনও ওসমানীর ল্যাবে বিপুলসংখ্যক নমুনা পরীক্ষার জন্য পড়ে আছে।

৭ থেকে ১০ দিন আগে নমুনা পাঠিয়েও এখন পর্যন্ত রিপোর্ট পাননি অনেকে। এতে করে বাড়ছে ঝুঁকি।

সিলেটে দ্রুত আরও ল্যাব স্থাপন না করলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে।

সিলেটে করোনাভাইরাস আক্রান্ত প্রথম রোগী শনাক্ত হন গত ৫ এপ্রিল।

এখন পর্যন্ত সিলেট বিভাগে মোট করোনা শনাক্ত হয়েছে ১০৭ জনের।

Previous post ত্রাণের নিতে লাইনে দাঁড়ানো নিয়ে সংঘর্ষ, রগ কাটা হলো যুবকের
Next post পরীক্ষার জন্য গণস্বাস্থ্যের কাছে ৮০০ কিট চেয়েছে আমেরিকা