নেত্রকোনায় ট্রলার ডুবিতে নিহতদের মধ্যে মাদরাসার প্রধান শিক্ষকসহ পরিবারের ৮ জন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | সোহেল আহম্মেদ, নেত্রকোনা থেকে


নেত্রকোনার মদন উপজেলার উচিতপুরের হাওরে নৌকাডুবিতে এ পর্যন্ত ১৭ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এবং একজন নিখোঁজ রয়েছে।

বুধবার (৫ আগষ্ট) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে মদনের উচিতপুরের সামনের হাওরে রাজালীকান্দা নামক স্থানে এ নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। এ দূর্ঘটনায় নিহতদের মধ্যে আটজন একই পরিবারের বলে জানা গেছে।

একই পরিবারের নিহত আটজন হলেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার সিরতা ইউনিয়নের কোনাপাড়া গ্রামের মারকাজুস সুন্নাহ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক মাহফুজুর রহমান (৪৫), তার বড় ছেলে মাহবুবুর রহমান আসিফ (১৭), ছোট ছেলে মাহমুদুর রহমান (১৪), ভাগনে রেজাউল করিম (১৮), ভাতিজা মো. জুবায়ের হোসাইন (১৯) ও মো. মুজাহিদ মিয়া (১৪)। তারা সবাই মারকাজুস সুন্নাহ মাদরাসার হেফজ বিভাগের শিক্ষার্থী। নিহত মাহফুজুর রহমানের ভাতিজি লুবনা আক্তার (১০) ও জুলফা আক্তার (৭) ইসরাহুল বানাত মহিলা মাদরাসার শিক্ষার্থী। তাদের বাড়ি ময়মনসিংহ সদর উপজেলায়।

জানা গেছে, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ৫ নম্বর সিরতা ইউনিয়নের কোনাপাড়া গ্রামের মারকাজুস সুন্নাহ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান শিক্ষক মাহফুজুর রহমান । তিনি ইসরাহুল বানাত মহিলা মাদরাসারও প্রতিষ্ঠাতা। বুধবার সকালে ময়মনসিংহ সদর থানার চরশিরতা ইউনিয়ন ও আটপাড়া তেলিগাতী থেকে প্রায় ৪৮ জনকে নিয়ে মদনের উচিতপুর হাওরে ঘুরতে যান তারা। হাওরের উত্তাল ঢেউয়ে গোবিন্দশ্রী রাজালীকান্দা নামক স্থানে নৌকাটি ডুবে যায়। এতে ১৭ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয় এবং একজন এখনো নিখোঁজ রয়েছে।

About |

Check Also

insaf24-wednessday-21-october-20-604

insaf24-wednessday-21-october-20-6024