পাকিস্তানের জন্য আধুনিক রণতরী নির্মাণ করেছে তুরস্ক

পাকিস্তানের জন্য তুরস্কের মিলজেম এডা ক্লাস করভেট নির্মাণ শুরুর লক্ষ্যে স্টিল কাটিং উদ্বোধনী অনুষ্ঠান পাকিস্তানের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর করাচিতে অনুষ্ঠিত হয়েছে বলে পাকিস্তান নৌবাহিনী মঙ্গলবার জানিয়েছে।

পাকিস্তান নৌবাহিনীর বিশেষায়িত জাহাজনির্মাণ বিভাগ করাচি শিপিয়ার্ড অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস (কেএসইডব্লিউ)-এ অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পাকিস্তান নৌবাহিনীর কর্মকর্তা, তুরস্কের রাষ্ট্রীয় প্রতিরক্ষা প্রতিষ্ঠান আসফাতের প্রতিনিধিরা।

পাকিস্তান নৌবাহিনী ২০১৮ সালের জুলাই মাসে আসফাতের কাছ থেকে চারটি মিলজেম ক্লাস জাহাজ সংগ্রহের চুক্তি করে। পরিকল্পনা অনুযায়ী, দুটি করভেট নির্মাণ করা হবে তুরস্কে, আর দুটি নির্মিত হবে পাকিস্তানে। এতে প্রযুক্তি হস্তান্তরের বিষয়টিও থাকবে।

গত সপ্তাহে প্রথম মিলজেম আদা ক্লাস করভেটের নির্মাণ অনুষ্ঠান হয় ইস্তাম্বুলে।

মিলজেম রণতরীর দৈর্ঘ ৯৯ মিটার, এর ডিসপ্লেসমেন্ট সক্ষমতা ২৪ হাজার টন এবং গতি ২৯ নটিক্যাল মাইল।

মিলজেম সাবমেরিনবিধ্বংসী কমব্যাট ফ্রিগেট রাডার এড়িয়ে চলতে পারে। এগুলো পাকিস্তান নৌবাহিনীর সক্ষমতা আরো বাড়াবে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়, মিলজেম ক্লাস করভেট হলো অত্যাধুনিক সারফেস প্লাটফর্ম। এতে আধুনিক সারফেস, সাবসারফেস, বিমানবিধ্বংসী অস্ত্র, সেন্সর, কমব্যাট ব্যবস্থাপনা ব্যবস্থা থাকে। পাকিস্তান নৌবাহিনীতে এগুলো হবে সবচেয়ে আধুনিক প্লাটফর্ম। এর ফলে ভারত মহাসাগর অঞ্চলে শান্তি, স্থিতিশীলতা, শক্তির ভারসাম্য আরো বেশি রক্ষিত হবে।

জাতীয় সক্ষমতায় রণতরী নির্মাণ, ডিজাইন করা ও রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারে, এমন ১০টি দেশের একটি হচ্ছে তুরস্ক।

সূত্র : আনাদুলু এজেন্সি, সাউথ এশিয়ান মনিটর