প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে আত্মসমর্পণের সুর: রিজভী

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, “জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া বক্তব্যে করোনাভাইরাসের কাছে আত্মসমর্পণের সুর ধ্বনিত হয়েছে।”

বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, “গতকাল সংসদে সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যে যতই শক্তিশালী হোক, যতই অর্থশালী, অস্ত্রশালী হোক, কোনো শক্তিই কাজে আসছে না। করোনাভাইরাসই যেন সবচেয়ে শক্তিশালী।আপনার একজন প্রভাবশালী মন্ত্রী হুংকার দিয়ে বলেছিলেন আওয়ামী লীগ নাকি করোনার চেয়ে শক্তিশালী। সেই শক্তি গেল কোথায়?

তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে এখন করোনার কাছে আত্মসমর্পণের সুর ধ্বনিত হচ্ছে। দম্ভোক্তি করে নিজেদেরকে করোনার চেয়ে শক্তিশালী ভেবে পুরো লকডাউন না দিয়ে সাধারণ ছুটি ও ক্ষুধার্ত মানুষের জনরোষ থেকে ময়ূর সিংহাসনে যাতে ধাক্কা না লাগে সেজন্য জীবন-জীবিকার প্রশ্ন উস্কে দিয়ে করোনাভাইরাসকে আমন্ত্রণ জানাতে সবকিছু উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।”

রিজভী বলেন, “এই মুহূর্তে করোনা কালবৈশাখীর ঝড়ে বাংলাদেশ লণ্ডভণ্ড। হু হু করে আক্রান্ত ও মৃত্যুবরণের সংখ্যা বাড়ছে। গোরস্থানে লাশ দাফন করা যাচ্ছে না বলে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে।তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় নেতা ও মন্ত্রীদের আত্বীয়স্বজন পর্যন্ত কেউই এই সর্বগ্রাসী করোনার আগ্রাসনের মুখে ত্রাণ চুরি থেকে নকল মাস্কের ব্যবসাসহ হেন অপকর্ম নেই, যেটির সাথে তাদের সংশ্লিষ্টতা নেই।”

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, “যার কারণে এখন করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সর্বাধিক মাশুল দিতে হচ্ছে। ছুটি মার্কা তামাশা না করে নিশ্ছিদ্র লকডাউন ও সর্বোচ্চ টেস্ট এবং রোগী শনাক্তকরণের মাধ্যমে সংক্রমণের বিস্তার প্রতিরোধ করে করোনা থেকে মানুষকে রক্ষায় যে পদক্ষেপ নেয়া উচিত ছিল সেটা তারা করেননি।”