দক্ষিণ কোরিয়ায় দ্বিতীয়বার হানা দিয়েছে করোনাভাইরাস, ছড়িয়েছে নাইটক্লাব থেকে

দক্ষিণ কোরিয়ায় গত ১০ দিনে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল প্রায় শূন্যের কোঠায়। কিন্তু গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

কোরিয়া সেন্টার্স ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনসন (কেসিডিসি) জানিয়েছে, নতুন করে আক্রান্ত ৩৪ জনের মধ্যে ২৬ জনই রাজধানী সিওলের বাসিন্দা। বাকি ৮ জন বহিরাগত।

বিষয়টিকে দেশজুড়ে মহামারীর দ্বিতীয় ধাক্কা আখ্যা দিয়ে দেশবাসীকে সতর্ক করেছেন প্রেসিডেন্ট মুন জায় ইন।

এদিকে নিয়ন্ত্রণে থাকা ভাইরাসের সংক্রমণ হঠাৎ করে কেন উল্লম্ফন দিল তার খোঁজে নেমেছে কোরীয় সরকার।

রাজধানী সিওলের একটি নাইটক্লাব থেকে নতুন করে ফের এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ওই নাইটক্লাবে অংশ নেয়া ২০ বছর বয়সী এক যুবকের শরীরে করোনাভাইরাস পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার আগে ওই যুবক নাইটক্লাবে গিয়েছিলেন।

ওই যুবক আরও কতজনের মাঝে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে, সে বিষয়ে ইতিমধ্যে তদন্তে নেমেছে কর্তৃপক্ষ।

সিওল কর্তৃপক্ষের কাছে ১ হাজার ৫০০ জনের একটি বিশাল তালিকা দিয়েছে ওই নাইটক্লাব। এসব ব্যক্তি গত কয়েক দিনে সেখানে গিয়েছিলেন।

এক নির্দেশনায় সিওল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তালিকায় থাকা নারী-পুরুষের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের ১৪ দিন সেলফ আইসোলেশনে থাকার নির্দেশ দেয়া হচ্ছে। এ ছাড়া তাদের করোনার পরীক্ষা করা শুরু হয়েছে।

করোনা প্রকোপ থেমে যাওয়ায় সম্প্রতি বিধিনিষেধে শিথিলতা এনেছে দক্ষিণ কোরিয়া। খুলে দেয়া হয়েছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলো চালু হয়েছে।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারসের সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, দেশটিতে এ পর্যন্ত ১০ হাজার ৮৭৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ২৫৪ জন। ১ হাজার ৮ জন বাদে বাকি সবাই সুস্থ হয়েছেন। তবে এখনও ৫৫ জন করোনা রোগী হাসপাতালে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছেন।

Previous post মাওলানা মুহিউদ্দীন খান রহ. এর সহধর্মীনির ইন্তিকাল করেছেন
Next post কৃষি অধিদফতরের মহাপরিচালক ও তার মেয়ে করোনায় আক্রান্ত