জনগণের চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার লঙ্ঘিত হওয়ায় রিট করবে মানবাধিকার কমিশন

জনগণের চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার লঙ্ঘিত হওয়ায় রিট করবে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। রবিবার (১০ মে) কমিশনের এক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রবিবার (১০ মে) সকাল সাড়ে ১১টায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশন অনলাইন সভার আয়োজন করে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগম। উপস্থিত ছিলেন সার্বক্ষণিক সদস্য ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ; অবৈতনিক সদস্য ড. নমিতা হালদার, এনডিসি, জেসমিন আরা বেগম, মিজানুর রহমান খান, চিংকিউ রোয়াজা।

সভার শুরুতে করোনার সময়ে জনগণ চিকিৎসার অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে মর্মে গণমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন সংবাদের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে সরকারের নির্দেশনা এবং বারবার কমিশনের সুপারিশ পাঠানো সত্ত্বেও কোনও কোনও প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির উদাসীনতা এবং দায়িত্বহীনতার কারণে চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত না হওয়ায় কমিশন রিট দায়ের করার সিদ্ধান্ত নেয়।

এছাড়া করোনাকালে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বৃদ্ধি, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনের সদস্যদের মাধ্যমে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনাসমূহে কমিশনের বিভিন্ন পদক্ষেপ, ইউএনডিপির সহযোগিতায় হিউম্যান রাইটস প্রোগ্রামের প্রায় এক কোটি টাকায় দলিত ও অনগ্রসর, প্রতিবন্ধী এবং হিজড়া জনগোষ্ঠীর মধ্যে মোট ৮ হাজার ৪০০টি পরিবার এবং ১ হাজার ৫৭০ জন ব্যক্তিকে স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তায় ত্রাণ বিতরণ, ২০২০-২১ অর্থবছরের বরাদ্দকৃত বাজেট বিভাজন সম্পর্কে সভায় আলোচনা হয়।

Previous post সর্বোচ্চ: দেশে একদিনে ১০৩৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত
Next post করোনা আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীকে সপরিবারে পুড়িয়ে মারার হুমকি