করোনা মহামারীর মধ্যেই জামিয়ার ছাত্রকে গ্রেফতার করলো ভারতীয় পুলিশ

করোনা মহামারীর মধ্যেই ভারতে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (সিএএ) বিরোধী এক শিক্ষার্থীকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ।

গ্রেফতার ওই শিক্ষার্থী সিএএ বিরোধী বিক্ষোভে অংশ নিয়েছিলেন এবং তিনি দিল্লির ঐতিহ্যবাহী জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বলে দাবি পুলিশের।

ওই ছাত্রের নাম আসিফ ইকবাল তানহা। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক ফারসি বিভাগের তৃতীয় বর্ষে পড়ছেন।

সরকারি কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে রোববার এসব তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আসিফ ইকবাল তানহা জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের স্টুডেন্ট ইসলামিক অর্গানাইজেশনের (এসআইও) সদস্য। রোববার দিল্লির শাহীনবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

দিল্লি পুলিশের এক সিনিয়র কর্মকর্তা এনডিটিভিকে জানিয়েছেন, গত বছরের ১৫ ডিসেম্বর সিএএ -এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ চলাকালে জামিয়া মিলিয়ার পার্শ্ববর্তী নিউ ফ্রেন্ডস কলোনিতে চারটি গণপরিবহন ও দুটি পুলিশের গাড়িতে আগুন দেয় বিক্ষোভকারীরা। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, পুলিশ ও দমকল বাহিনীর সদস্যসহ অন্তত ৪০ জন আহত হন। ওই ঘটনায় পরদিন করা এক মামলায় আসিফ ইকবালকে রোববার গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশের দাবি, জামিয়া কো-অর্ডিনেশন কমিটির সদস্যরা ওই হামলা চালিয়েছিল। আসিফ ইকবাল কমিটির নেতৃত্ব দানকারীদের একজন।

তবে সে সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল কিছু ভিডিও ও ছবিতে দেখা গেছে ভিন্ন চিত্র।

সেসব ভিডিও দেখাতে গেছে, সিএএ বিরোধিতা করায় জামিয়া মিলিয়ার শিক্ষার্থীদের বেধড়ক মারধর করছে দিল্লি পুলিশ। উল্টোদিকে শান্তিপূর্ণ ভাবে প্রতিবাদ চালিয়ে গেছেন শিক্ষার্থীরা। সে সময় আমির আজিজ নামে এক শিক্ষার্থীকে একাধিক কবিতা লিখে প্রতিবাদ করতে দেখা গেছে।

এনডিটিভি জানিয়েছে, গ্রেফতারের পর আসিফকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছে। আগামী ৩১ মে পর্যন্ত বিচারিক হেফাজতে রেখে তার রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১২ ডিসেম্বর ভারতে পাস হয় বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ)। এই আইনকে ধর্মবিদ্বেষী ও বৈষম্যমূলক আখ্যা দিয়ে ভারতজুড়ে সরকার বিরোধী বিক্ষোভ হয়। দিল্লিতে এই বিক্ষোভে অংশ নেন জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশিরভাগ শিক্ষার্থীরা।

Previous post ভোক্তা অধিদফতরের মহাপরিচালক করোনায় আক্রান্ত
Next post করোনাভাইরাস: আরও এক পুলিশ কর্মকর্তার মৃত্যু