লকডাউনে চলাচল করতে এসে গেল পুলিশের ‘মুভমেন্ট পাস’

লকডাউন পরিস্থিতিতে জরুরি প্রয়োজনে বের হতে হলে পুলিশের কাছ থেকে অনুমতি পাওয়া যাবে। এক্ষেত্রে অনলাইনে একটি আবেদন করতে হবে। সেই আবেদন ফরম উন্মুক্ত করেছে পুলিশ।

পুলিশ সদর দফতর জানিয়েছে, সেবাটি এখনো ডেমো পর্যায় রয়েছে। তবে খুব শিগগিরই সেবাটি চালু হবে।

সেবা চালু না হলেও বুধবার (২০ মে) ‘মুভমেন্ট পাস’ নামে সেই আবেদন উন্মুক্ত করা হয়েছে। যেখানে কোথায় কখন কিভাবে যাবেন, তা জানিয়ে আবেদন ফরম ফিলাপ করলে পুলিশ তাতে সায় দেবে। প্রয়োজনীয় তথ্য দেওয়ার পর শর্তসাপেক্ষে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য অনুমতি মিলবে। প্রতিবার যাতায়াতের জন্য পাস নিতে হবে, একটি পাস একবার ব্যবহারযোগ্য। যাওয়া এবং আসার জন্য দুইটি আলাদা পাসের আবেদন করতে হবে।

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স জানায়, জরুরি প্রয়োজনে নির্ধারিত ওয়েবপেইজে অনলাইন আবেদনের মাধ্যমে পুলিশের সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে লকডাউন পরিস্থিতিতে বের হওয়ার অনুমতি নিতে পারবেন।

পুলিশ সূত্র জানায়, বর্তমানে সারাবিশ্বে করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন চলছে। বাংলাদেশও এর ব্যতিক্রম নয়। কিন্তু জরুরি প্রয়োজনে মানুষকে অবশ্যই ঘরের বাইরে যেতে হয়। পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশ পুলিশ অনলাইনে আবেদনের মাধ্যমে যথোপযুক্ত কারণ দেখিয়ে বাইরে যাবার অনুমতি দিচ্ছে।

অনলাইনে আবেদনের জন্য (https://movementpass.police.gov.bd) এই লিংকে ঢুকে মুভমেন্ট পাসের জন্য আবেদন করতে হবে। মুভমেন্ট পাস ক্লিক করে আপনার মোবাইল নাম্বারটি প্রবেশ করাতে হবে। এরপর আপনার মোবাইলে একটি OTP চলে যাবে। OTP প্রবেশ করালে আপনি পাস এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

মুভমেন্ট পাসের জন্য প্রয়োজন হবে-

১. যে থানা এলাকা থেকে যাবেন
২. যে থানা এলাকায় যাবেন
৩. আপনার নাম
৪. লিঙ্গ
৫. বয়স
৬. ভ্রমণের কারণ
৭. পাস ব্যবহারের তারিখ ও সময়
৮. পাশের মেয়াদ শেষের তারিখ ও সময়
৯. পরিচয় পত্র
১০. নিজস্ব গাড়ি কি
১১. আপনার ছবি

মুদি মালামাল কেনাকাটা, কাঁচাবাজার, ওষুধ কেনা, চিকিৎসা, চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন, পণ্য সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয়, পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসাসহ অন্যান্য যেসব কারণে বাইরে যাওয়ার আবেদন করা যাবে।

পরিচয়পত্র হিসেবে জাতীয় পরিচয় পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, জন্ম নিবন্ধন বা স্টুডেন্ট আইডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।