গণস্বাস্থ্যের কিটেই করোনা শনাক্ত হয়েছে, দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন জাফরুল্লাহ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সোমবার গণমাধ্যমকে বিষয়টি তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন।

রোববার গণস্বাস্থ্যের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তার করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি বাসায় আইসোলেশনে আছি।

সাবধানে থাকার আহ্বান জানিয়ে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আমি যদি না জানতাম কালকে, তাহলে আজকে অনেক লোককে আক্রান্ত করতাম। আমাদের কিটের সুবিধা হলো দ্রুত এতে জানা যায়।’

এদিকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গবেষকদের উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস শনাক্তে ‘জিআর র‌্যাপিড ডট ব্লট’ কিটের ‘ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের’ জন্য মঙ্গলবার (২৬ মে) সময় নির্ধারণ করা হলেও এই কার্যক্রম স্থগিত করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

সোমবার (২৫মে) ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের অনুরোধে তা স্থগিত করা হয়।

এবিষয়ে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘তারা (ওষুধ প্রশাসনের) আমাদের আজকে একটি চিঠি দিয়ে অনুরোধ করেছে। আমাদেরকে বলা হয়েছে, অনুগ্রহ করে এ পরীক্ষা বন্ধ করতে, আমরা তাদের অনুরোধ রেখেছি।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অন্যতম ট্রাস্টি ক্ষোভ নিয়ে বলেন, ‘গত বছর ডেঙ্গু আক্রমণ হয়, তখনও গণস্বাস্থ্যের ডেঙ্গু কিট অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল কোনও রকম পরীক্ষা ছাড়াই। এবছরও কোনও পরীক্ষা ছাড়াই সাতদিনে রেমডিসিভিরের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে আমাদের অনুরোধ থাকবে, আমরা কার্যক্রম স্থগিত করেছি।’

‘বিএসএএমইউ তিনশ’ কিট পরীক্ষা করেছে। আমরা বিভিন্নসূত্রে জেনেছি, এই ট্রায়ালে কিটের কার্যকরিতা পেয়েছে। আমি জানি না, কেন তারা করছেন না।’ যোগ করেন তিনি।