করোনার চিকিৎসা: হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন পরীক্ষা বাতিল করলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

করোনভাইরাসের সম্ভাব্য চিকিৎসা হিসেবে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল অস্থায়ীভাবে স্থগিত করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

সম্প্রতি হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের কার্যকারিতা নিয়ে ‘ল্যানসেট’ সাময়িকীতে প্রকাশিত নেতিবাচক ফলাফলের পর গতকাল সোমবার ডব্লিউএইচও এর পরীক্ষা বন্ধ করে দেয়।

গত সপ্তাহে ‘ল্যানসেট’ সাময়িকীতে প্রকাশিত নিবন্ধে বলা হয়, হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন কোভিড-১৯ রোগীদের মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়িয়ে দেয়। এর পরপরই এ সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ভার্চ্যুয়াল প্রেস কনফারেন্সে জানান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস।

তেদরোস বলেন, বিশ্বজুড়ে কয়েক শ হাসপাতালে কোভিড-১৯ রোগীদের ওপর সলিডারিটি ট্রায়াল নামে হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইনের কার্যকারিতা নিয়ে পরীক্ষা শুরু করতে যাচ্ছিল এক্সিকিউটিভ গ্রুপ। সতর্কতার অংশ হিসেবে তা বাতিল করা হয়েছে।

হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন মূলত আর্থাইটিসের চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো ব্যক্তি ভাইরাসের চিকিৎসায় এর পক্ষে কথা বলেন এবং দ্রুত এটি কেনার নির্দেশ দেন।

ট্রাম্প গত সপ্তাহে বলেছিলেন যে তিনি হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা হিসেবে গ্রহণ করছেন।

রোববার সিনক্লেয়ার ব্রডকাস্টিংয়ে প্রচারিত একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, তিনি তাঁর কোর্স শেষ করেছেন।

এদিকে ডব্লিউএইচওর এ সিদ্ধান্ত উড়িয়ে দিয়েছে ব্রাজিল। করোনার চিকিৎসায় তারা এ ওষুধ ব্যবহার করেই যাবে বলেছে।