মসজিদ খুলে দেয়া প্রসংশনীয় সিদ্ধান্ত তবে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে: চরমোনাই পীর

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী রেজাউল করীম পীর বলেছেন, সরকার ধীরে ধীরে সবকিছু খুলে দিচ্ছে। এ মুহুর্তে মসজিদগুলো বন্ধ রাখার কোন যৌক্তিকতা নেই। রমযান মাসের সাথে মসজিদের সম্পর্ক খুবই গভীর। মসজিদগুলো খুলে দেয়া অবশ্যই প্রসংশানীয় সিদ্ধান্ত।

বুধবার এক বিবৃতিতে চরমোনাই পীর বলেন, যে মুহুর্তে দেশব্যাপী করোনা মহামারী আকার ধারণ করেছে এবং ক্রমেই তা মারাত্মক রূপ নিচ্ছে, এমতাবস্থায় মুসল্লিদেরকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সতর্কতার সাথে মসজিদে যেতে হবে। বাসা থেকে উযূ করে মসজিদে যেতে হবে এবং ফরয নামাজ ও তারাবি পড়ে বাসায় ফিরে যেতে হবে। স্বাভাবিকের চেয়ে একটু ফাঁকা ফাঁকা হয়ে কাতারবন্দী হতে হবে। অসুস্থ ব্যক্তি, বেশি বয়স্ক ও নাবালেগ বাচ্চারা মসজিদে যাবে না।

মসজিদ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে চরমোনাই পীর বলেন, পাঁচওয়াক্ত নামাজের পূর্বে মসজিদকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করতে হবে এবং জীবানুনাশক দিয়ে জীবানুমুক্ত করার ব্যবস্থা করতে হবে।

করোনা মহামারী থেকে পরিত্রাণের জন্য মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে সবাইকে বেশি বেশি কান্নাকাটি করার আহ্বান জানান তিনি।

Previous post মহানবীকে (সা.) নিয়ে কটুক্তিকারী রনির আদালতে স্বীকারোক্তি, আরেকজন গ্রেফতার
Next post মসজিদ উন্মুক্ত করে দেয়ায় সরকারকে হাসানাত আমিনীর ধন্যবাদ