করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের তথ্য দেবে না গুগল ও অ্যাপল

গ্রাহকদের গোপনীয়তা বজায় রাখতে ‘কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ’গুলোকে জিপিএস তথ্য বা ‘লোকেশন ট্র্যাকিং’ পরিষেবা বন্ধ করে দেবে বলে জানিয়েছে গুগল-অ্যাপল।

সোমবার কোম্পানি দুটির পক্ষ থেকে এ কথা জানানো হয়।

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমণ রুখতে ও করোনা রোগী সহজেই শনাক্ত করতে বিভিন্ন দেশ ইতিমধ্যে ‘কনট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ’ তৈরি করছে।এই অ্যাপটির মাধ্যমে আশপাশে সংক্রমিত কেউ থাকলে গ্রাহক সেই তথ্য ও সতর্কবার্তা ফোনেই পেয়ে যাবেন।

এর আগে গুগল-অ্যাপল গত মাসে জানিয়েছিল, তারা এমন একটি পদ্ধতি তৈরি করতে কাজ করছে যাতে, কোনো ব্যক্তির কাছে করোনায় আক্রান্ত কেউ কাছে চলে আসলে স্মার্ট ফোনের নোটিফিকেশনের মাধ্যমে তা জানতে পারবে।তারা পরিকল্পনা করেছিল এই প্রযু্ক্তি শুধুমাত্র স্বাস্থ্য অধিদফতর কর্তৃপক্ষ ব্যবহার করতে পারবে।

গুগল ও অ্যাপল বলেছিল, তাদের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিল গোপনীয়তা ও সরকারকে জনগণনের তথ্য সংগ্রহ করা থেকে বিরত রাখা। এ পদ্ধতি আক্রান্তদের শনাক্ত করতে ফোন থেকে ব্লুটুথের মাধ্যমে সংকেত ব্যবহার করে থাকে তবে, জিপিএস স্টোরের লোকেশন ডাটা ব্যবহার করে না।

গুগল-অ্যাপল বলছে, তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং সিস্টেমকে জিপিএস ডাটা সংগ্রহ করার অনুমতি দেবে না। তবে সরকারি স্বাস্থ্য সেবার সঙ্গে যুক্ত সংস্থাগুলোর ক্ষেত্রে বিষয়টি আলাদা। এ ক্ষেত্রে প্রতি দেশের এই ধরনের একটি মাত্র সংস্থাকে জিপিএস তথ্য ব্যবহারের অনুমতি দেবে অ্যাপল ও গুগল।

পাশাপাশি তারা জানিয়েছে, করোনা আক্রান্তদের নিয়ে একটি তথ্যভাণ্ডার তৈরি করা হচ্ছে। যা কেবলমাত্র স্বাস্থ্য সেবার সঙ্গে যুক্ত সংস্থাগুলো ব্যবহার করতে পারবে।

কোভিড-১৯ মোকাবেলায় তৈরি অন্য অ্যাপগুলোকে জিপিএসের পরিবর্তে ব্লু-টুথ প্রযুক্তি ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছে অ্যাপল-গুগল।

যদিও করোনা সম্পর্কিত অ্যাপস উদ্ভাবকেরা গত মাসে জানিয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি রাজ্যে করোনা প্রাদুর্ভাবের ফলে হইস্পট শনাক্তে তাদের কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং সিস্টেমের সঙ্গে জিপিএস লোকেশন ডাটা ব্যবহারের অনুমতি দেয়া গুরুত্বপূর্ণ ছিল।