‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসা আপাতত বাসাতেই হচ্ছে’

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে আপাতত বাসায় রেখেই চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

তার বোন সেলিমা ইসলাম শুক্রবার গণমাধ্যমকে একথা জানান।

তিনি বলেন, দেশের বর্তমান যে পরিস্থিতিতে অন্য কোথাও চিকিৎসা সম্ভব নয়। সে জন্য তাকে বাসায় চিকিৎসা নিতে হচ্ছে।

যারা চিকিৎসা দিচ্ছেন তারা সবাই বিশেষজ্ঞ ফিজিশিয়ান বলেও জানান তিনি।

জানাগেছে, গুলশানে খালেদা জিয়ার ভাড়াবাড়ি ‘ফিরোজা’য় প্রবেশাধিকার কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রিত। চিকিৎসক দলের সদস্য আর কয়েকজন নিকটাত্মীয় ছাড়া আর কারও ঢোকার অনুমতি নেই।

চলতি বছরের ২৫ মার্চ ছয় মাসের জন্য শর্তসাপেক্ষে মুক্তি পান বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

দুর্নীতির দায়ে ২৫ মাস সাজা ভোগের পর ‘মানবিক বিবেচনায়’ সরকারের নির্বাহী আদেশে মুক্তি পান তিনি।

মুক্তির আগে প্রায় এক বছর কারা তত্ত্বাবধানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন খালেদা জিয়া।