বাংলাদেশ থেকে করোনার ওষুধ রেমডিসিভির আমদানি করবে ভারত

ভারতে মহারাষ্ট্র সরকার কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় রেমডিসিভির ওষুধের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু করতে যাচ্ছে। আর এই ওষুধ বাংলাদেশ থেকে আমদানি করবে মহারাষ্ট্র সরকার। খবর এনডিটিভি’র।

করোনার পরীক্ষামূলক চিকিৎসায় রেমডিসিভির ওষুধের সফলতা রয়েছে। ওষুধটির একমাত্র উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান আমেরিকার গিলিয়াড সায়েন্স। প্রতিষ্ঠানটির লাইসেন্সধারী একাধিক ভারতীয় ওষুধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি ছাড়পত্র না পাওয়ায় এখনও দেশটিতে রেমডিসিভির উৎপাদন ও বিপণন করছে না।

ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সবচেয়ে বিপর্যস্ত রাজ্য মহারাষ্ট্র। রাজ্যটিতে সংক্রমণের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে বন্দরনগরী মুম্বাই। সংক্রমণের সংখ্যায় এরই মধ্যে উহানকে ছাড়িয়ে গেছে শহরটি। কোভিড-১৯ রোগের চিকিৎসায় ভারতে রেমডিসিভির ব্যবহারের অনুমোদন দেওয়া হলেও তা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যবহার শুরু হয়নি। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশ থেকে রেমডিসিভির ওষুধ কেনার পরিকল্পনা করেছে মহারাষ্ট্র সরকার।

গিলিয়াড সায়েন্স বাংলাদেশের কোনও ওষুধ কোম্পানিকে এখনও রেমডিসিভির উৎপাদনের লাইসেন্স দেয়নি। তবে জাতিসংঘের স্বল্পোন্নত দেশসংক্রান্ত বাণিজ্য নীতি অনুযায়ী, বাংলাদেশের ওষুধ কোম্পানিগুলো লাইসেন্স ছাড়াই বৈধভাবে ওষুধটি উৎপাদন করতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, বাংলাদেশে উৎপাদিত রেমডিসিভির মানের দিক থেকে কোনও অংশেই কম নয়।

দেশের দুটি ওষুধ কোম্পানি বর্তমানে রেমডিসিভির উৎপাদন করছে। এর মধ্যে কোন কোম্পানির কাছ থেকে ভারত করোনার ওষুধটি কিনবে, তা এনডিটিভির খবরে বলা হয়নি।

Previous post মুফতী মুশতাকুন নবীর বাবার ইন্তেকালে মুফতী ইমরানুল বারী সিরাজীর শোক
Next post মেহেরপুরে জামায়াতে ইসলামীর আমীর গ্রেফতার