চীনকে ঠেকাতে স্বাধীনতাকামী কাশ্মীর থেকে লাদাখে সেনা পাঠাচ্ছে ভারত

লাদাখে চীনা সেনাদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর এলএসি’র বিভিন্ন জায়গায় সেনা বাড়াচ্ছে ভারত। ভারত দখলকৃত স্বাধীনতাকামী কাশ্মীর থেকে আইটিবিপি (ইন্দো-টিবেটান বর্ডার পুলিশ)-র ২০ কোম্পানি সেনা এরিমধ্যে সেখানে পাঠানো হয়েছে। আরও কিছু সেনা ও আধাসামরিক বাহিনীর সদস্য সেখানে পাঠানো হচ্ছে।

আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়েছে, ৩৭০ নম্বর অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের আগে থেকে এই সেনারা কাশ্মীরে মোতায়েন ছিলো। তবে রাতারাতি সেনা সরে যাওয়ায় কাশ্মীরের পির পাঞ্জাল ক্ষেত্রের মতো কিছু জায়গা কার্যত সেনাশূন্য হয়ে পড়েছে। নিরাপত্তা বাহিনী সূত্রের বরাতে সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, সেনাদের শূন্যস্থানে পাঠানো হচ্ছে সিআরপি সদস্যদের।

দখলকৃত কাশ্মীরের স্বাধীনতাকামীদের দমনের জন্য সেনা, আধাসেনা ও পুলিশকে নিয়ে একটি কোর গ্রুপ গঠন করেছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সেই গ্রুপের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাশ্মীর থেকে আইটিবিপি-র ২০ কোম্পানি সেনা ইতিমধ্যে লাদাখে পৌঁছেছে।

আরও কিছু সেনা পাঠানো হবে। আইটিবিপি ও সেনারা মিলে চীন ও ভারতের মধ্যে ৩৪৮৮ কিলোমিটার এলএসি-র নিরাপত্তার দায়িত্বে আইটিবিপি-র যে জওয়ানদের সেখানে পাঠানো হয়েছে বা হচ্ছে, গত এক বছর ধরে তাদের উচ্চ পার্বত্য এলাকায় যুদ্ধের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

Previous post আফগানিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত খুলে দেবে পাকিস্তান
Next post ‘ওয়েব সিরিজের নামে অশ্লীলতা প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা হবে’