আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী ও বন্দুকধারীর গুলাগুলিতে নিহত ২১

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | সোহেল আহম্মেদ


আফগানিস্তানের নানগারহার প্রদেশের জালালাবাদের কারাগারে বন্দুকধারীর গুলাগুলিতে এ পর্যন্ত ২৪ জন নিহত ও অর্ধশত আহত হয়েছে। খবর আল জাজিরা’র।
সোমবার (৩ আগষ্ট) দেশটির কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছে। খবরে বলা হয়েছে, আইএসআইএল এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

এদিকে, তালেবানের এক মুখপাত্র টুইটার বার্তায় জানিয়েছে যে এ হামলার সাথে তালেবানের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই।

নানগারহার প্রদেশের গভর্নরের মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোগিয়ানি জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে কারাগারের বন্দীদের পাশাপাশি বেসামরিক লোক, কারাগারের রক্ষী এবং আফগান নিরাপত্তা কর্মীরা রয়েছে। এ পর্যন্ত তিন হামলাকারী নিহত হয়েছেন বলেও জানিয়েছেন তিনি।

গতকাল রবিবার গভীর রাতে শুরু হওয়া হামলাটি এখনো চলমান রয়েছে। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশংকা করছেন কর্মকর্তারা।

খোগিয়ানি আরো জানান, হামলা চলাকালীন সময়ে যেসব বন্দী কারাগার থেকে পালিয়ে গেছে তাদের পূণরায় আটক করার জন্য পুলিশের উপর চাপ প্রয়োগ করা হয়েছে। সোমবার দুপুর পর্যন্ত প্রায় ১ হাজার পলাতক বন্দী ধরা পড়েছে। কারাগারটিতে আইএসআইএল ও তালেবান সদস্যসহ প্রায় ২ হাজার বন্দী রয়েছে।

আফগান গোয়েন্দা সংস্থা জানিয়েছে, রাজধানীর কাবুলের প্রায় দেড়শো কিলোমিটার পূর্বে জালালাবাদের নিকটে আফগানিস্তানের বিশেষ বাহিনী দ্বারা আইএসআইএল-এর একজন সিনিয়র কমান্ডারকে হত্যা করার একদিন পর কারাগারে হামলার ঘটনাটি ঘটেছে।

গত সপ্তাহে জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানে আইএসআইএল-এর প্রায় ২ হাজার ২ শত সদস্য রয়েছে। এই গোষ্ঠীটি যখন আঞ্চলিক পশ্চাদপসরণের শিকার হয়েছে এবং এর নেতৃত্ব হ্রাস পেয়েছে তখন তারা কাবুলসহ বিভিন্ন অঞ্চলে হামলার ঘটনা ঘটাচ্ছে।