ফিলিস্তিনি কিশোরের মাথায় গুলি করে শহীদ করলো ইহুদিবাদী ইসরাইল

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নাহিয়ান হাসান


অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় ১৫ বছরের ফিলিস্তিনি কিশোরকে মাথায় গুলি করে নৃশংসভাবে শহীদ করেছে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সেনাবাহিনী।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে জানা যায় যে, ১৩ মে বুধবার পশ্চিম তীরের দক্ষিণে হঠাৎ ইসরাইলী সেনারা ‘ফাওয়ার শরণার্থী শিবিরে’ ঢুকে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়তে থাকলে ১৫ বছর বয়সী এক ফিলিস্তিনি কিশোর শহীদ ও চারজন ফিলিস্তিনি যুবক আহত হয়।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, সেই ১৫ বছরের সাহসী শহীদ ফিলিস্তিনি কিশোরের নাম,‘যায়েদ ফাদেল কাইসিয়্যাহ’। ‘যায়েদ ফাদেল কাইসিয়্যাহ’ মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে শহীদ হয়ে যায়। তবে বাকি চারজন গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন। সেই চার ফিলিস্তিনির মধ্যে একজন পেটে, আরেকজন বুকে এবং বাকি দুজন শরীরের নিম্নাংশে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

উল্লেখ্য, স্থানীয় সূত্রে জানা যায় যে সেই শরণার্থী শিবিরে বুধবার(১৩ই মে) হঠাৎ ইহুদীবাদী ইসরাইলী সেনারা ঢুকে পরলে কয়েকজন ফিলিস্তিনি যুবক প্রতিবাদ জানায়। সেসময় তাদের সাথে একজন ১৫ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি কিশোরও প্রতিবাদ করে। এহেন পরিস্থিতিতে উগ্র ইহুদীবাদী সেনারা তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি চালাতে থাকলে সেই কিশোর সহ আরো চারজন ফিলিস্তিনি যুবক গুরুতর ভাবে আহত হয় তবে ‘কাইসিয়্যাহ’ মাথায় গুলিবিদ্ধ হওয়ায় তার অবস্থা বেশ আশঙ্কাজনক ছিল।

পরবর্তীতে যায়েদ ফাদেল কাইসিয়্যাহকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত ঘোষণা করে। তারপর এই সাহসী, শহীদ ফিলিস্তিনি কিশোরের জানাজা পড়ে কবর দিয়ে দেওয়া হয়।