''বিশ্ব ইজতেমায় টিভি দেখে মোনাজাত হয়, এবার তারাবিও টিভির সম্প্রচারেই পড়বেন!''

রমজান মাসে বাংলাদেশের মসজিদে জমায়েত করে তারাবির নামাজ না পড়ে, বিকল্প হিসেবে মসজিদ থেকে টেলিভিশনে তারাবির নামাজ সরাসরি সম্প্রচারের প্রস্তাব করেছেন সাংসদ সাবের হোসেন চৌধুরী।

মি. চৌধুরী বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, কোন একটা জায়গার নামাজ সম্প্রচার করা হলে, সেটার যে অডিও আছে সেটি অনুসরণ করে আপনি খতম তারাবি পড়তে পারেন। যেমন বিশ্ব ইজতেমায় যখন আখেরি মোনাজাত হয় তখন টেলিভিশনে তা সরাসরি দেখে অনেকে সেই মোনাজাতে অংশ নেন। আবার আমরা যখন নামাজ পড়ি, বেশিরভাগই লোকই কিন্তু ইমামকে দেখতে পান না। তখন আমরা মাইকে যে শব্দ আসে সেটা অনুসরণ করে নামাজ শেষ করি।

তিনি বলেন, অনেকেই অন্তত রমজান মাসে তারাবির নামাজটা পড়েন। তারাবি নামাজের যে দুটো পদ্ধতি – সুরার মাধ্যমে এবং খতম তারাবি – যাদের বাড়িতে কোন হাফেজ নেই তাদের জন্য এটি খতম তারাবির একটি অপশন (বিকল্প) হতে পারে। টেলিভিশনে সম্প্রচার হলে কারো টিভির স্ক্রিনে তাকানোর প্রয়োজন নেই। শুধু অডিও শুনলেই হবে।

তিনি উদাহরণ দিয়ে বলছিলেন, সৌদি আরবের মক্কায় তারাবির সময় অডিও সরাসরি সম্প্রচার হয়। অনেকেই সেটি অনুসরণ করে নামাজ পড়েন। বাংলাদেশে প্রযুক্তির দিক দিয়ে এটি অসম্ভব কিছু নয়।

তবে তিনি বলছেন, বিষয়টি ইসলামি শরীয়ত অনুযায়ী এবং ধর্মীয় নিয়ম অনুযায়ী কতটুকু সঠিক, সেটা জানতে হবে। সেটা নিয়ে আরও চিন্তা হতে পারে, কথা হতে পারে।

এছাড়া কিছু সমস্যা নিয়েও বলেছেন তিনি। যেমন হঠাৎ বিদ্যুৎ চলে গেলে কি হবে। সে সম্পর্কে তিনি বলেন, যদি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় তাহলে অডিও বিদ্যুতের উপর নির্ভরশীল থাকছে না। বরং ইন্টারনেট সংযোগের উপর নির্ভর করছে।

Leave a Reply