সৌদির ইতিহাসে মৃত্যুদণ্ডের সর্বোচ্চ রেকর্ড ২০১৯ সালে, অর্ধেকই বিদেশি

গত বছর বিভিন্ন অপরাধে অন্তত ১৮৪ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছে সৌদি আরব, যা দেশটির ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেকর্ড। মৃত্যুদণ্ড দেয়া এসব আসামিদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি বিদেশি নাগরিক বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

গত বছর সৌদিতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে বেশিরভাগই মাদক সংক্রান্ত অপরাধ ও খুনের মামলার আসামি। তবে দেশটি মৃত্যুদণ্ডকে সংখ্যালঘু শিয়া মুসলিমদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক হতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে বলে দাবি করেছে অ্যামনেস্টি।

২০১৯ সালে একসঙ্গে ৩৭ জনের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেছিল সৌদি সরকার। এদের মধ্যে ৩২ জনই শিয়া মুসলিম। তাদের ব্যাপক নির্যাতনের মাধ্যেমে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের স্বীকারোক্তি আদায় করা হয়েছিল বলে দাবি মানবাধিকার সংগঠনটির।

দেশটিতে এ বছর মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে ছয়জন নারী ও ১৭৮ জন পুরুষ রয়েছেন। ২০১৮ সালে তারা মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল ১৪৯ জনের।

বিশ্বের ১০৬টি দেশ ইতোমধ্যেই মৃত্যুদণ্ড দেয়ার বিধান বাতিল করেছে। তবে এখনও ১৪২টি দেশে এই আইন রয়েছে।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের গবেষণা বিষয়ক জ্যেষ্ঠ পরিচালক ক্লেয়ার আলগার বলেন, ‘মৃত্যুদণ্ড একটি ঘৃণ্য ও অমানবিক শাস্তি; এবং এটি কারাদণ্ডের চেয়ে অপরাধপ্রবণতা বেশি কমায় এমন বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণও নেই। বেশিরভাগ দেশই এটি বুঝতে পেরেছে এবং এর ফলে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুদণ্ড কার্যকরের সংখ্যা কমে আসছে।’

সূত্র- বিবিসি বাংলা