হায়দরাবাদের স্টেডিয়াম হচ্ছে আইসোলেশন সেন্টার

কলকাতার বিখ্যাত ইডেন গার্ডেনস স্টেডিয়ামকে প্রয়োজনে মেডিকেল সেন্টার হিসেবে ব্যবহারের প্রস্তাব দিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি। করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনের ইডেনে ডর্মিটরি এবং ইনডোর ব্যবহারের কথাই বলেছেন গাঙ্গুলি।

পরদিন প্রস্তাব এলো হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের (এইচসিএ) পক্ষ থেকে। জরুরি অবস্থার সৃষ্টি হলে হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামকে আইসোলেশন সেন্টার হিসেবে ব্যবহার করার কথা বলেছে এইচসিএ।

এ প্রস্তাব জানিয়ে তেলেঙ্গানা প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রশেখর রাওকে চিঠি দিয়েছেন এইচসিএর সেক্রেটারি বিজয়ানন্দ। সেই চিঠিতে বিজয়ানন্দ জানিয়েছেন, স্টেডিয়ামটিতে ৪০টি বড় বড় কক্ষ রয়েছে। যেগুলোকে চাইলে আইসোলেশন ওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করা যায়।

এইচসিএ প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আজহারউদ্দিনের পক্ষ থেকে দেয়া চিঠিতে বিজয়ানন্দ লিখেছেন, এইচসিএ প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন এবং অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সকল সদস্যদের পক্ষ থেকে আমি জানাতে চাই যে, আপনাদের (তেলেঙ্গানা সরকার) সঙ্গে তাল মেলানোর লক্ষ্যে, প্রয়োজনে রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের সকল সুবিধাদি আইসোলেশন সেন্টার হিসেবে ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।

তিনি লিখেছেন, এই সংকটময় মুহূর্তে আমরা মনে করছি, আমাদের নৈতিক দায়িত্ব এখন এগিয়ে আসা। স্টেডিয়ামে যে ৪০টি বড় বড় কক্ষ রয়েছে সেগুলোকে ভাইরাস আক্রান্ত মানুষদের সেবার কাজে ব্যবহার করা যায়। এছাড়াও অনেক বড় পার্কিং এরিয়াও ব্যবহার করা যায় চাইলে। করোনার বিরুদ্ধে এ লড়াইয়ে অবদান রাখতে পারলে আমরা অনেক খুশি হবো।