মিয়ানমারের ধৃষ্টতা : ফের সেন্টমার্টিনকে নিজেদের ভূখন্ড দাবি

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


ফের সেন্টমার্টিন দ্বীপকে নিজেদের ভূখণ্ড হিসেবে মানচিত্রে দেখিয়েছে মিয়ানমার।

এর প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার বিকালে ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়েছে।

রাষ্ট্রদূতকে তলবের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শহিদুল হক।

তিনি জানান, মিয়ানমারের মানচিত্রে ফের বাংলাদেশের সেন্টমার্টিন দ্বীপকে নিজেদের ভূখণ্ডের অন্তর্গত দেখানো হয়েছে। আমরা মিয়ানমারের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূতকে ডেকেছি, তার কাছে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হবে। দেখি তিনি কী জবাব দেন।

এর আগে গত বছরও মিয়ানমারের জনসংখ্যাবিষয়ক বিভাগের ওয়েবসাইটে সেন্টমার্টিনকে তাদের মানচিত্রে দেখানো হয়। সে সময়ও মিয়ানমারের কাছ থেকে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়। মিয়ানমার তখন জানিয়েছিল, তারা দেশের মানচিত্র তৈরির কাজ একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান দিয়ে করিয়েছে। ওই প্রতিষ্ঠানটি মানচিত্র তৈরিতে ভুল করে সেন্টমার্টিনকে নিজেদের ভুখন্ড হিসেবে দেখিয়েছে। পরে অবশ্য সেটি তাদের মানচিত্র থেকে সরিয়ে ফেলা হয়।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, মিয়ানমার মাঝে মাঝে উসকানি দেয়। তবে আমরা সেই উসকানিতে পা দিতে চাই না। আমরা সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে দুদেশের সম্পর্ককে আরও উন্নীত করার চেষ্টা করে যাচ্ছি।



ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্স

ইনসাফ সাংবাদিকতা কোর্সদেশের প্রথম ইসলামী ঘরানার অনলাইন পত্রিকা ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকমের আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে স্বল্পমেয়াদী সাংবাদিকতা কোর্স।অংশগ্রহণ করতে যোগাযোগ করুন এই নাম্বারে-০১৭১৯৫৬৪৬১৬এছাড়াও সরাসরি আসতে পারেন ইনসাফ কার্যালয়ে।ঠিকানা – ৬০/এ পুরানা পল্টন ঢাকা ১০০০।

Posted by insaf24.com on Monday, October 29, 2018


কাদিয়ানীদের কথিত ইজতেমা বন্ধ না হলে পঞ্চগড় অভিমুখে লংমার্চ করবে হেফাজত
ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | নিজস্ব প্রতিনিধি


মানবতার মুক্তির দূত মহানবী হযরত মুহাম্মাদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে শেষ নবী হিসেবে অস্বীকারকারী কাদিয়ানী সম্প্রদায়ের ঘোষিত কথিত জাতীয় ইজতেমা বন্ধ না হলে পঞ্চগড় অভিমুখে লংমার্চ করার ঘোষণা দিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ।

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) বেলা ১১ টায় হাটহাজারীতে অবস্থিত হেফাজত আমীরের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এ কর্মসূচী ঘোষণা করা হয়।

কথিত ‘আহমদিয়া মুসলিম জামাত’ তথা কাদিয়ানী সম্প্রদায়কে সরকারীভাবে অমুসলিম ঘোষণা ও পঞ্চগড়ে অনুষ্ঠিতব্য ৩ দিন ব্যাপী কথিত ইজতেমা বন্ধ ঘোষণার দাবিতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়জন করা হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন হেফাজত আমীর আল্লামা শাহ্‌ আহমদ শফী, মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, কেন্দ্রিয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী ও প্রচার সম্পাদক মাওলানা আনাস মাদানী প্রমূখ।