ট্রাম্প মুসলিম উম্মাহর হৃদপিন্ডে আঘাত করেছে : শায়খুল ইসলাম আল্লামা শফী

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর, শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ আহমদ শফী বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বিতর্কিত জেরুজালেম শহরকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে আমেরিকান দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার যে ঘোষণা দিয়েছেন তাতে মধ্যপ্রাচ্যে অশান্তি বাড়বে। সেই সাথে ট্রাম্প ইহুদীদের ক্রিড়নক হয়ে মুসলিম উম্মাহর হদয়ে আঘাত হেনেছে। যা মুসলমানদের জন্যে এক বড় অশনিসংকেত।

তিনি আজ এক বিবৃতিতে আরও বলেন, জেরুজালেমের এই বিষয়টা কেবল ফিলিস্তিনি জনগণের নয়; বরং পুরো আরব ও মুসলিম উম্মাহর। মূলত এ ঘোষণার মাধ্যমে মুসলিম উম্মাহকে উসকে দেয়া হচ্ছে এবং তথাকথিত সন্ত্রাসীর তকমা লাগিয়ে গণহত্যা চালানোর অযুহাত খুঁজা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, দখলদার ইসরায়েল ফিলিস্তিনের ভূখণ্ড দখল করেই চলছে। ইসরায়েলি বাহিনীর হাতে প্রতিদিন ঝরছে ফিলিস্তিনি মুসলমান যুবক, শিশু-কিশোরদের তাজা প্রাণ। এরপরও বিশ্ববিবেক নিশ্চুপ। এর উপর ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই ঘোষণা এসব হত্যাকাণ্ডকে নিরব অনমোদন দেয়ার নামান্তর।
আমরা এর তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করছি এবং এধরণের অহেতুক সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জোর দাবী জানাচ্ছি।

আমরা মনে করি, ট্রাম্প কতৃর্ক জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার সিদ্ধান্ত মধ্যপ্রাচ্যসহ গোটা মুসলিম দুনিয়ায় শান্তি প্রক্রিয়া চরমভাবে ব্যহত করবে। যা এই অঞ্চলের স্থিতিশীলতার জন্য মারাত্মক হুমকি।
এ ঘোষণা ফিলিস্তিনি জনগণের উপর স্পষ্ট আগ্রাসন।

মুসলিম বিশ্ব এমন সিদ্ধান্ত কখনো মেনে নিবে না। বিশ্বব্যাপি এর তীব্র প্রতিবাদ জানানো উচিত। এমন হঠকারি ও চরম উস্কানীমূলক সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে বাধ্য করতে বিশ্ব মুসলিম নেতাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।