৮ দফা দাবিতে সিএনজি চালকদের বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাও

ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচলরত মেয়াদোত্তীর্ণ অটোরিকশা অপসারণসহ ৮ দফা দাবি আদায়ে মিরপুরে বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাও করেছে সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

আজ সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ৫ শতাধিক সিএনজি অটোরিকশা চালক ও শ্রমিক বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে বিআরটিএ কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নেন।

এদিকে সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ কর্তৃক বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাওয়ের খবরে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়। বিআরটিএ কার্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়েছে পুলিশ সদস্যরা।

পুলিশি বাধায় বিআরটিএ-এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের কাছে তাদের লিখিত দাবি-দাওয়া পেশ করেন শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ঢাকা জেলা কমিটির সদস্য সচিব সাখাওয়াত হোসেন দুলাল।

কর্মসূচি শেষে কমিটির সদস্য সচিব সাখাওয়াত হোসেন দুলাল সাংবাদিকদের বলেন, পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী দাবি আদায় না হওয়ায় আজ (রোববার) বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করা হয়েছে।

ঐক্য পরিষদের ৮ দফা দাবিগুলো হলো- ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরীতে চলাচল করা মেয়াদোত্তীর্ণ অটোরিকশা অপসারণ করে নতুন অটোরিকশা প্রতিস্থাপন, ঢাকায় চালকদের নামে পাঁচ হাজার এবং চট্টগ্রামে চার হাজার অটোরিকশা বিতরণ, উবার ও পাঠাও এর মত অ্যাপনির্ভর পরিবহন সেবা বন্ধ, খসড়া পরিবহন আইন থেকে ‘শ্রমিক স্বার্থবিরোধী’ ধারা বাতিল, ড্রাইভিং লাইসেন্স নবায়নে ব্যবহারিক পরীক্ষা বন্ধ করা, অননুমোদিত পার্কিংয়ের জন্য মামলা না করা, চালকদের ‘হয়রানি’ বন্ধ করা ও নিবন্ধিত অটোরিকশা চালকদের ঢাকা জেলার সব জায়গায় চলাচলের অনুমতি দেওয়া।

এ বিষয়ে কাফরুল থানার ওসি শিদকার শামীম হোসেন জানান, পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। সিএনজি অটোরিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদ ৮ দফা দাবি আদায়ে বিআরটিএ কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি দিয়েছিল। তবে তাদের লিখিত দাবি-দাওয়া পেশ করার মাধ্যমে আন্দোলন বন্ধ করা হয়েছে।