হজ্বের নিরাপত্তায় নিযুক্ত হলো সিভিল ডিফেন্সের ১৮ হাজার প্রশিক্ষিত কর্মী

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম | মুহাম্মাদ জিন্নুরাইন


হজ্বের সময় তীর্থযাত্রীদের অনেক ঝুঁকির সম্মুখীন হতে হয়। তম্মধ্যে বৃষ্টি, প্রবল বাতাস, প্রখর রোদের উত্তাপ, অগ্নিকাণ্ড, দুষ্কৃতিকারীদের থেকে বাহ্যিক ঝুঁকি, লাখো মানুষের ভিড়ে প্রচণ্ড চাপ অন্যতম। যা অবশ্যই একটি অঞ্চলে লক্ষ লক্ষ হজ্বের তীর্থযাত্রীদের সমাবেতের কারণে অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে সংঘটিত হতে পারে।

সম্ভাব্য এই ঝুঁকি রোধ করার জন্য সিভিল ডিফেন্সের সাধারণ অধিদপ্তর ১৮,০০০ এরও বেশি প্রশিক্ষিত দক্ষ  কর্মীকে নিয়োগ প্রদান করেছে।
এছাড়াও ১৩ টি ভিন্নতর ঝুঁকি মোকাবেলা করার জন্য ৩,০০০ টি মেশিন ও সরঞ্জাম যন্ত্রপাতি প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এই ঝুঁকিগুলি নিখুঁত গবেষণা, পর্যবেক্ষণ ও বিশ্লেষণের পর বিশেষ কর্মশালার মাধ্যমে ঝুকি নিয়ন্ত্রণের সম্ভাব্য চেষ্টা করা হচ্ছে। অনাকাঙ্খিত যেকোন পরিস্থিতি উত্থাপিত হলে পরিকল্পিত সমাধানের মাধ্যমে তা নিয়ন্ত্রণে কার্যত ভূমিকা রাখার জন্য প্রতিটি কর্মীকে যোগ্য হিসাবে গড়ে তোলা হয়েছে।

জামারাতে একটি অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় টিম রাখা হয়েছে এবার। যারা সব ধরনের ঝুঁকি মোকাবেলা করার জন্য সদা নিবেদিত। সিভিল ডিফেন্সের অধীনে (রেডক্রস সহ) সেখানে প্রয়োজনীয় নিরাপদ স্থান (সাময়িক শুশ্রুষা কেন্দ্র) বা হাসপাতাল পর্যাপ্ত পরিমাণে রাখা হয়েছে। আর এই নিরাপদ স্থান বা হাসপাতালের জন্য ৬০টি অতিরিক্ত ইমার্জেন্সি পথ করা হয়েছে।

জামারায় সুড়ঙ্গ পথে পদপিষ্ট হয়ে ২০১৫ সালে বিপুল মানুষের মৃত্যু ঘটে। সেই বেদনাতুর ঘটনার পূনরাবৃত্তি থেকে রক্ষা পাবার জন্য এবার বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।


উৎস, হজ্ব মিডিয়া