কোরবানির গরু জবাইয়ে বাধাদানকারী হিন্দু সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে শাস্তি দিন

ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম |

আজিজুল হক ইসলামাবাদীবন্দর নগরী চট্টগ্রামের হালিশহর থানার আচার্য্য পাড়ায় ঈদুল আজহার দিন মুসলমানদের গরু কোরবানি করতে স্থানীয় হিন্দু সন্ত্রাসী কর্তৃক বাধা দেয়ার ঘটনায় তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী।

আজ এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, উল্লিখিত এলাকায় ঈদের দিন গরু কোরবানি করতে গেলে স্থানীয় হিন্দু সন্ত্রাসী আশীষ কুমার নাথ, শান্তুনু কুমার, বেনু কুমার, কানু আচার্যরা মুসলমানদের বাধা দিয়ে বলে, ‘এ এলাকা আমাদের বাপ দাদার, এ এলাকায় গরু জবাই হলে গর্দান ফেলে দেয়া হবে’। হিন্দু সম্প্রদায়ের এ হুমকির পর আচার্য পাড়ার মুসলিম পরিবারসমূহ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। এ ব্যাপারে গতকাল (১৫/০৯/২০১৬) বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী মুসলিম পরিবারের পক্ষ হতে মোহাম্মদ মোজাম্মেল হাওলাদার (৬৫) এ বিষয়ে হালিশহর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ (অভিযোগ নম্বর-১৫৯৯/১৬) দায়ের করেন।

অভিযোগকারী মোহাম্মদ মোজাম্মেল হাওলাদার বলেন, ঈদের দিন সকাল ১০টায় আশীষ কুমার নাথ, শান্তুনু কুমার, বেনু কুমার, কানু আচার্য তাদের সরকারি রাস্তায় গরু জবাই করতে বাধা দেন এবং অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে এবং গরু জবাই করলে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে বলে রাস্তা তাদের, সেখানে গরু জবাই করা যাবে না। এলাকাবাসী জানান, প্রকাশ্যে হত্যার হুমকি দেয়া সত্ত্বেও তাৎক্ষণিক এর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেননি হালিশহর থানার ওসি প্রণব চৌধুরী, এমনকি জিডি নিতেও রাজী হয়নি থানা পুলিশ।

আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, হিন্দু সন্ত্রাসীরা কুরবানীর গরু জবাইয়ে বাধা দিয়ে মুসলমানদের অন্তরে চরমভাবে আঘাত করেছে। এরা সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়ে দেশে দাঙ্গা সৃষ্টি করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার ষড়যন্ত্র করছে। এদের ছেড়ে দেয়া হবেনা। হিন্দুদের মনে রাখতে হবে বাংলাদেশ মুসলমানদের মাতৃভূমি। এটা ভারতের অঙ্গরাজ্য নয়।

সংখ্যাগরিস্ট মুসলিম দেশে ধর্মীয় কাজে বাধা দানকারী হিন্দু সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার জন্য তিনি প্রশাসনের নিকট জোর দাবী জানিয়ে বলেন, অন্যথায় যে কোন কঠিন পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে তার জন্য সরকারকেই দায়ী থাকতে হবে।

14315452_1840350026195290_841560922_o
হালিশহর থানায় করা লিখিত অভিযোগ (অভিযোগ নম্বর-১৫৯৯/১৬)

তথ্য সূত্রঃ দৈনিক ইনকিলাব